এফ এ সি ৫৮

রান্ডম টপিক

সিকাডা[蜩, 茅蜩, ひぐらし]

আনিমেতে অনেক সময় ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক হিসাবে শোনা যায় “বিজবিজবিজ্জজ্জজ”। এটা হল সিকাডার ডাক। সিকাডা আছে অনেক প্রজাতির, এর মধ্যে জাপানে যেটা বেশি পাওয়া যায়, তার বৈজ্ঞানিক নাম Tanna japonensis, বিস্তারিত : http://en.wikipedia.org/wiki/Tanna_japonensis 

এই লিঙ্কে গেলে ২ ঘণ্টা ধরে সিকাডার ডাক শুনতে পারবেন। http://www.youtube.com/watch?v=eE-_kNWJXNw

 

আনিমে সাজেশন

 তাতাকাউ শিশো:দ্য বুক অব বান্তোরা [Tatakau Shisho:The Book of Bantorra]

“মানুষ মরে গেলে পচে যায়, বেঁচে থাকলে বদলায়, কারণে অকারণে বদলায়”? কিন্তু এই আনিমে অনুসারে মানুষ মরে গেলে বই হয়ে যায়, আর তাদেরকে সংরক্ষনের জন্য থাকে যোদ্ধা গ্রন্থাগারিকের দল!

কেন দেখবেনঃ দারুন সব ফাইটিং সিকোয়েন্স, টানটান উত্তেজনাপূর্ণ কাহিনী, এবং হামিউতস মেসেতা।

কেন দেখবেন নাঃ কাহিনী একটু অধারাবাহিক মনে হতে পারে, আর ফিনিশিংটা উদ্ভট গোছের।

ম্যাল রেটিং: ৭.৪৩

আমার রেটিং ৮

 

মাঙ্গা সাজেশন

জোজো’স বিজার এডভেঞ্চার পার্ট ৭:স্টীল বল রান [JoJo’s Bizarre Adventure Part 7:Steel Ball Run]

যখন “মন্দ কাজ করা যায় সুলভে”, আর তা করেন স্বয়ং ইউনাইটেড স্টেটস এর প্রেসিডেন্ট, ঘটনা কেমন দাঁড়াবে? চিন্তা করতে কষ্ট হচ্ছে?

আমিই বলে দিচ্ছি, এর পরিণতি হবে পুরো উত্তর আমেরিকা জুড়ে এক ঘোড়দৌড়, যেমনটি আর কেউ দেখেনি, দেখবে না পরেও আর।

এতে অংশগ্রহণকারী কারা?

ভাগ্যদেবীকে হাতের মুঠোয় পোরা পোকোলোকো, প্রাচ্যদেশীয় প্রবীন নরিস্কে, আদিবাসী স্যান্ডম্যান, আরব দেশ থেকে আসা আব্দুল, জিনিয়াস ব্রিটিশ জকি ডিয়েগো ব্র্যান্ডো, রহস্যময় তরুণ জাইরো জেপেলি, আর খোঁড়া এক ওয়াশড আপ জকি জনি জোস্টারসহ কয়েক হাজার প্রতিযোগী! মরুতে উঠল প্রবল ঝড়, ডাইনোসর আসল তেড়ে, অজানা সব শত্রুর আক্রমণ প্রতিনিয়ত। আর এসব কিছুর পিছনেই উদ্দেশ্য কিনা ২০০০ বছরের পুরনো এক কঙ্কাল হাতানো?! ঘোড়ার পিঠে জিন চড়ান ভালমত, শক্ত হাতে ধরুন লাগাম। এ এমন এক যাত্রা, যার হবে এক হাই ভোল্টেজ সমাপ্তি!

কেন পড়বেনঃ কাহিনী সম্পূর্ণ স্ট্যান্ডএলোণ, আগের ৬ কাহিনীর সাথে কোন সম্পর্ক নেই। আরাকি নতুন করে নিজেকে ভেঙে আবার গড়েছেন। সব স্ট্যান্ড এখন আর আগের মত হিউমানয়েড নেই, তাদের সবার নামও সঙ্গীতের সাথে জড়িত নয়। অনেক বেশি ভারসেটাইল তারা, এবং লড়াইয়ে স্ট্যান্ডএর তুলনায় স্ট্যান্ডইউজারের অংশগ্রহন বেশি। মাঙ্গাতে পাশ্চাত্যের পটভূমিতে এমন টানটান কাহিনীর অবতারণা করা, এ মনে হয় এক আরাকির পক্ষেই সম্ভব। কোথাও ঠেকে যাবার জো নেই, কাহিনী পানসে হয়নি কোথাও।

কেন পড়বেন না: কোন কারণ নেই, না পড়া মানে মিস করা।

 

ম্যাল রেটিং: ৮.৯১[ম্যালে ১৩ নাম্বার]

আমার রেটিং ১০

বি.দ্র.: ইউনাইটেড স্টেটস মানে ইউনাইটেড স্টেটস অব ফ্রিডম না, ইউনাইটেড স্টেটস অব ভ্যালেনটাইন
হাতানো?

Comments

comments