তামাকোর মোচিসমৃদ্ধ পৃথিবী; তামাকো মার্কেট রিভিউ – লিখেছেন ইশমাম আনিকা

Tamako_Market

“কি করব, যখন হঠাৎ করে মনে হচ্ছে, আনিমু দেখে আরাম পাইতেসি না, ধাড়ুম ধুড়ুমের ঠেলায় মাথা ধরে গেল?”

দ্য আন্সার ইজ কিওঅ্যানি!!

দেখে ফেললাম কিয়োটো অ্যানিমেশনের আরেকটি চমৎকার কাজ “তামাকো মার্কেট”। মোচি প্রস্তুতকারী পরিবারের মেয়ে তামাকো। তার বাড়ি বানি মাউন্টেন শপিং ডিস্ট্রিক্ট এ, তাদের পারিবারিক মোচিশপের পেছনে। তামাকো ভালবাসে তার পরিবারকে, তাদের দোকানকে, তাদের এই শপিং ডিস্ট্রিক্টকে; আর সবচেয়ে বেশি ভালবাসে মোচি তৈরি করতে।

১২ পর্বের এ সিরিজটিতে পুরোটা সময়ই তামাকো এবং তার আশেপাশের মানুষদের প্রাণবন্ত দৈনন্দিন জীবনের উজ্জ্বল চিত্র তুলে ধরা হয়। হঠাৎ একদিন হাজির হওয়া রাজকীয় মোরগসদৃশ কথাবলা পাখি দেরা, দেরার হাস্যকর কাজকর্ম, তামাকোর বিভিন্ন উৎসব উপলক্ষে নতুন ধরণের মোচি তৈরির আইডিয়া, প্রতিবেশী বাল্যবন্ধু মোচিজৌর সাথে প্রতি রাতে কাগজের কাপ ফোনে কথা বলা, সেইসাথে তার বন্ধু এবং পরিবারের সাথে যে সুন্দর সম্পর্ক; সবমিলিয়ে যে কাউকে ভাবতে বাধ্য করবে, আমার জীবনটাও যদি তামাকোর মত হত!

অ্যানিমেটিতে বেশ কিছু মনকে ছুঁয়ে যাওয়া মূহুর্ত আছে, আবার মুড হালকা করে দেয়ার অনেক এলিমেন্ট আছে! কিওঅ্যানির আর্ট নিয়ে নতুন কিছু বলার নেই, প্রতিটা চরিত্রই পছন্দ করার মত। ওএসটি খুব চমৎকার, ওপেনিং এবং এন্ডিং সং- দুটোই মনে ছাপ ফেলে দেয়ার মত; আমার বেশি পছন্দ এন্ডিং সংটা।

সবমিলিয়ে বেশ রিফ্রেশিং একটা অ্যানিমে ছিল তামাকো মার্কেট, হালকা কোন অ্যানিমে দেখতে চাইলে তামাকোর সাথে ঘুরে আসতে পারেন বানি মাউন্টেন শপিং ডিস্ট্রিক্ট এ।

sam_1494scaled

 

Movie Time With Yami – 36

226651

Name: K-On! Movie
Duration: 1 hr. 50 min.
MAL Score: 8.39
Ranked: 161
Genres: Comedy, Music, Slice of Life

সাকুরাগাওকা হাইস্কুলে তৃতীয় বর্ষে পড়ুয়া চার বান্ধবী ইউয়ি, রিতসু, মুগি এবং মিও। তারা একই মিউজিক ক্লাবের সদস্য, তাদের সাথে এই ক্লাবে পাঁচ নম্বর একজন সদস্য আছে, যার নাম আজুসা। আজুসা দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।

ক্লাবের তৃতীয় বর্ষের সদস্যদের গ্রাজুয়েশন ডে ঘনিয়ে আসছে। তাই তারা সবাই মিলে ঠিক করে যে তারা একটি সুন্দর স্মৃতি তৈরি করার জন্যে গ্রাজুয়েশন ট্রিপ এ যাবে। বিভিন্ন মজার মজার পদ্ধতি অবলম্বনের পর তারা ঠিক করে, এ ট্রিপটির জন্য তারা লন্ডনে যাবে। লাইট মিউজিক ক্লাবের সদস্যদের লন্ডন ভ্রমণের আগে পরের বিভিন্ন মজার ঘটনা নিয়ে কাহিনী এগিয়ে যেতে থাকে।

কখনো কোন অ্যানিমে দেখে নষ্টালজিয়াতে ভুগেছেন? বা কোন অ্যানিমে দেখে মনে হয়েছে, এই অ্যানিমেটাতে আসলে আছেটা কি, ভাল লাগছে আসলে কেন? কেঅন ঠিক সেরকম একটা অ্যানিমে। পাঁচজন হাইস্কুল পড়ুয়া মেয়ের বন্ধুত্ব, তাদের দৈনন্দিন জীবন এবং মজার মজার কাজকর্ম যে কারও মনকে ভাল করে দিতে পারে। কিয়োটো অ্যানিমেশনের আর্ট আমার খুব বেশি পছন্দ, কাজেই কেঅনের আর্টওয়ার্ক আমার কাছে অতিরিক্ত ভাল লেগেছে। যেহেতু জনরাতে মিউজিক ট্যাগটা আছে, কাজেই এতে বেশ কিছু গান অবশ্যই থাকবে, সবকয়টা গানই চমৎকার, এর মাঝে “টেনশি নি ফুয়েতে ও” গানটি আমার অসম্ভব সুন্দর লেগেছে। কাহিনীর গতি কিছুটা ধীর, তবে তা বরং উপভোগের ক্ষেত্রে সহায়ক।

এ মুভিটি যদিও কেঅন নামের অ্যানিমেটির সিক্যুয়াল, কেউ যদি মুভিটি আগে দেখতে চান, তার কোনই অসুবিধা হবে না।

তাই, হাতে তেমন কোন কাজ না থাকলে দেখে ফেলতে পারেন আমার অত্যন্ত পছন্দের এ চমৎকার মুভিটি।

Movie Download Link-
http://kissanime.com/Anime/K-On-Movie

Movie time with Yami প্রচারিত হচ্ছে প্রতি বৃহস্পতিবার। সেগমেন্ট সম্পর্কে আপনার যেকোন মতামত কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। আশা করি মুভির সাথে আপনার উইকএন্ড ভালো কাটবে !!

Movie Time With Yami – 35

millennium

Name: Millennium Actress / Sennen Joyuu Chiyoko
Duration: 1 hr. 27 min.
MAL Score: 8.35
Ranked: 187
Genres: Action, Adventure, Drama, Fantasy, Historical, Romance

সাতোশি কন সম্পর্কে যারা জানেন, তারা কন এর কোন মুভি দেখার সময় জানেন কি ধরণের প্লট আশা করতে হয়। এই মুভিটিও তার ব্যতিক্রম নয়। ঘোর লাগানো কল্পনা এবং বাস্তবতার মিশেলে একজন অভিনেত্রীর সফলতার গল্প, ভালবাসার গল্প খুব চমৎকারভাবে তারই অভিনীত বিভিন্ন মুভির দৃশ্যায়নের চিত্রের মাঝ দিয়ে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

গল্পটি শুরু হয় একজন ফিল্মমেকারের তার ক্যামেরাম্যানকে নিয়ে একজন জনপ্রিয় প্রাক্তন অভিনেত্রীর বাড়িতে তার ইন্টারভিউ নিতে যাওয়ার মাধ্যমে। তারা যে স্টুডিওতে কাজ করে, এই অভিনেত্রী সেই স্টুডিওতে অনেক বছর যাবৎ সেরা অভিনেত্রী হিসেবে কাজ করেছেন। বৃদ্ধা, কিন্তু এখনও লাবণ্য ধরে রাখা অভিনেত্রী চিয়োকো বলতে থাকেন তার অভিনেত্রী হয়ে ওঠার গল্প। কাহিনী চলতে থাকে চিয়োকোর স্মৃতিচারণের গল্পের সাথে সাথে।

এই গল্পটির বর্ণনাশৈলী একেবারেই অন্যরকম, সচরাচর এ ধরণের বর্ণনাশৈলী পাওয়াই যায়না। গল্পটির প্রায় পুরোটাই চলে ফ্লাশব্যাকে, এবং তা দেখানো হয় চিয়োকোর বিভিন্ন বিখ্যাত মুভির শুটিং এর দৃশ্য দেখানোর মাধ্যমে। গল্পটি আমাদের কখনো নিয়ে যায় ফিউডাল জাপানে, কখনো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে, তো কখনো কল্পনার ভবিষ্যতে, যেখানে স্পেসশিপে করে মানুষ পাড়ি জমাচ্ছে মহাকাশে। ফিল্মমেকার এবং ক্যামেরাম্যান যে কখন এই ফ্ল্যাশব্যাকের অংশ হয়ে যান, টেরও পাওয়া যায়না। কোনটা মুভির অংশ এবং কোনটা বাস্তবতা, তা নিজের অজান্তেই অদৃশ্য হয়ে যায় একসময়।

মুভিটির আর্টওয়ার্ক পুরোনো, কিন্তু চমৎকার। একেকটি দৃশ্য একেকভাবে তৈরি করা হয়েছে, যা কাহিনীর সাথে একেবারে একাত্ম হয়ে মিশে যায়। ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের মানানসই ব্যবহার একে দিয়েছে অনন্যতা। আর সেইসাথে বর্ণনাশৈলী একে পরিণত করেছে মাস্টারপিসে।

তাই, হাতে তেমন কোন কাজ না থাকলে এই উইকএন্ডেই দেখে নিতে পারেন চমৎকার এই মুভিটি।

Movie Download Link-
http://kissanime.com/Anime/Millennium-Actress

Movie time with Yami প্রচারিত হচ্ছে প্রতি বৃহস্পতিবার। সেগমেন্ট সম্পর্কে আপনার যেকোন মতামত কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। আশা করি মুভির সাথে আপনার উইকএন্ড ভালো কাটবে !!

Movie Time With Yami – 34

FlandersNoInu

Name: Flanders no Inu / The Dog of Flanders
Duration: 1 hr. 42 min.
MAL Score: 8.17
Ranked: 330
Genres: Adventure, Drama

প্রাচীন জাপানের একটি চার্চের একজন সিষ্টার চার্চের কয়েকটা বাচ্চাকে একটি জাদুঘর দেখাতে নিয়ে আসেন। সেখানে রয়েছে বিখ্যাত চিত্রশিল্পী রুবেনের আঁকা একটি অত্যন্ত চমৎকার পোর্ট্রেট। বাচ্চারা পোর্ট্রেটটি দেখে সিষ্টারের সাথে শিল্পী রুবেনের ব্যাপারে কথা বলে। তখন তার মনে পড়ে যায় এক শিল্পীর কথা, রুবেনের চিত্রকর্ম দেখে যে অনুপ্রেরণা পেত, স্বপ্ন দেখত ঠিক রুবেনের মত একজন শিল্পী হওয়ার। খুব গরিব এবং অভাবী অবস্থায় থাকার পরেও যে ছবি আঁকা চালিয়ে যেত। মুভিটির গল্প চলতে থাকে সিস্টারের কল্পনা অনুসরণ করে।

মুভিটি বেশ পুরোনো, এটি একই নামের একটি গল্পের বইয়ের কাহিনী অনুসরণ করে তৈরি। এবং মুভিটি তৈরি হওয়ার আগে ঐ একই বই অবলম্বনে যথাক্রমে ৫২ এবং ২৬ পর্বের দুটো অ্যানিমে সিরিজও তৈরি হয়েছিল। তারপরেও পৌনে দুই ঘন্টার এ মুভিটি আমার দেখা অন্যতম সেরা মুভিগুলোর মাঝে একটি। কাহিনীটা সম্পূর্ণ বাস্তবধর্মী, একটুও অবাস্তবতার ছাপ নেই, রূঢ় বাস্তবতাকে যেভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে, এককথায় অসাধারণ, প্রতিটি চরিত্রের সাথে দর্শক খুব সহজেই একাত্ম হয়ে যেতে পারেন। আর্ট স্টাইলটা কাহিনীর সাথে মানানসই, ওএসটি অসাধারণ বললেও কম বলা হবে, প্রতিটা দৃশ্যের আবেগকে খুব সুন্দরভাবে বের করে এনেছে। আর এর এন্ডিং আমার দেখা অন্যতম সেরা এন্ডিংগুলোর মাঝে একটি, মুভি শেষ করার পরেও অনেকক্ষণ বিশ্বাস করতে পারিনি।

তাই, আমার মতে, এই অসাধারণ বাস্তবধর্মী এবং হৃদয়স্পর্শী মুভিটি সবারই দেখা উচিৎ, তাহলে একবারের জন্যে হলেও অন্তত মনে পড়বে আমরা কতটা ভাল অবস্থানে আছি।

Movie Download Link-
http://kissanime.com/Anime/Flanders-no-Inu-Movie-Sub

Movie time with Yami প্রচারিত হচ্ছে প্রতি বৃহস্পতিবার। সেগমেন্ট সম্পর্কে আপনার যেকোন মতামত কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। আশা করি মুভির সাথে আপনার উইকএন্ড ভালো কাটবে !!

Movie Time With Yami – 33

tokyo-godfathers

Name: Tokyo Godfathers
Duration: 1 hr. 32 min.
MAL Score: 8.33
Ranked: 199
Genres: Comedy, Drama

আচ্ছা, “গডফাদার” শব্দটা শুনলে চোখের সামনে ঠিক কোন ছবিটা ভেসে ওঠে? মনে হয়না, যে নিশ্চয়ই কোন মাফিয়া বা আন্ডারওয়ার্ল্ড এর গ্যাং লিডার টাইপের কেউ হবে!! মুভিটার নাম দেখে আমিও তাই মনে করেছিলাম। কিন্তু গডফাদারের তো আরেকটা খুব সুন্দর অর্থ আছে! আর এই মুভিটি সেই অর্থটিই অনুসরণ করে।

ক্রিসমাস ইভে টোকিও শহরে উদ্দেশ্যহীনভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছে তিন ভবঘুরে। তাদের একজন গৃহহারা, একজন ক্রস ড্রেসার এবং আরেকজন ঘর পালানো বালিকা। এভাবে ঘুরতে ঘুরতে এবং আবর্জনার মাঝে ব্যবহারযোগ্য জিনিসের খোঁজ করতে করতে তারা হঠাৎ করে একটি ছোট্ট নবজাত শিশু খুঁজে পায়।

শিশুটিকে পেয়ে তিনজনই সংশয়ে পড়ে যায়। তারা নিজেরাই বাস্তুহারা, থাকার জায়গার কোন ঠিক নেই, সেখানে শিশুটিকে নিয়ে কি করবে তারা? একজন চাইল তাকে পুলিশের কাছে দিয়ে দিতে। কিন্তু আরেকজন পুলিশের নাম শুনলেই রেগেমেগে ওঠে। উপায়ন্তর না দেখে সিদ্ধান্তে পৌছানোর আগে তারা শিশুটিকে নিজেদের কাছে রেখে দেয়। শুরু হয় শিশুটিকে নিয়ে এই তিন ভবঘুরের দুর্দান্ত অভিযান।

মুভিটির পরিচালক সাতোশি কন, যিনি সাধারণ একটি প্লটকেও অসাধারণ করে তোলার ক্ষমতা রাখেন। টোকিও গডফাদারও তার ব্যতিক্রম নয়। পুরনো ধাঁচের আর্টওয়ার্কের এই মুভিটির কাহিনী বেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যায়, প্রতিটি দৃশ্যই দর্শকের জন্য কোন না কোন চমক তৈরি করে রেখেছে। একই সাথে মজাও লাগে, আবার কষ্টের অনুভূতিও হয় মুভিটা দেখার সময়। আর মানানসই ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক কাহিনীটাকে আরও উপভোগ্য করে তোলে।

তাই, সময় করে এখনই দেখে ফেলুন না এই চমৎকার মুভিটি!

Movie Download Link-
http://kissanime.com/Anime/Tokyo-Godfathers

 

Movie time with Yami প্রচারিত হচ্ছে প্রতি বৃহস্পতিবার। সেগমেন্ট সম্পর্কে আপনার যেকোন মতামত কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। আশা করি মুভির সাথে আপনার উইকএন্ড ভালো কাটবে !!