রিভিউ কন্টেস্ট এন্ট্রি [২০১৫] #২৮: Usagi Drop — Goutam Debnath Sagar

নামঃ Usagi Drop. Bunny Drop
জনরাঃ slice of life, comedy-drama
পর্বঃ ১১ ( মাঙ্গা ৯ ভলিউম)

রহস্যের মারপ্যাচ, ধুন্দুমার একশন, লুতুপুতু প্রেম দেখতে দেখতে ক্লান্ত অথবা পরীক্ষা, প্রেমিক/প্রেমিকা, পরিবার নিয়ে চিন্তা করতে করতে আপনার মস্তিষ্কের নিদারুণ হাল, একটু শান্তি খুঁজছেন? তাহলে এই আনিমে টা আপনার জন্য। ১১ পর্বের ১১x২২= ২৪২ মিনিট আপনাকে Never give up বলে John Cena বানাইতে বা lifeless loser থেকে super heroতে রুপান্তর করতে অথবা Power of friendship দিয়ে কিভাবে পৃথিবী বশ করা যায় তা না দেখাইতে পারলেও নির্মল বিনোদনের প্রতিশ্রুতি আমি দিতেই পারি(আপনি sol পছন্দ না করলে ভিন্ন কথা)।

কাহিনীঃ ৩০ বছরের বেচেলর দাইকিচি তার দাদার শেষঃকৃত অনুষ্ঠানে গিয়ে দাদার ৮ বছর বয়সী অবৈধ সন্তান রিন এর দেখা পায়। স্পর্শকাতর জন্ম তার উপর মা কে তা জানা নাই বলে পরিবারের অন্যান্যরা রিন থেকে মুক্তির পথ খুঁজতে থাকে। শেষ পর্যন্ত নীরব লক্ষ্মী মেয়েটার অনাথ আশ্রমে স্থায়ী ঠিকানা হওয়ার আশংকা দেখা যাওয়ায় দাইকিচি নিজের খালাকে adopt করবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু একজন বেচেলরের জন্য কাজের সাথে একটি মেয়ে পালন করা কি সম্ভব? রিন এর মাই বা কে? দাইকিচি কি তার চাকুরী রাখতে পারবে? রিনকে তার পরিচয় কি দিবে? Find out মরে on the next episode of Usagi Drop.

artwork আর music তেমন বলার মত কিছু না। অপেনিং বা এন্ডিং এভারেজ এগেছে। ভালো লেগেছে রিন এর সেইয়ু। দাইকিচি আর রিন এর chemistry ছিল দেখার মত। আমি রেটিং পছন্দ করি না, তাই মাল বা আমার রেটিং দিলাম না। শুধু বলব একবার ট্রাই করে দেখুন। আর আপ্নি যদি sol without romance এর ভক্ত হন বা একটু আলাদা story চেখে দেখতে চান তাহলে আপনি এইটাই খুঁজছেন।

critism বা review লেখায় আমি অতীব noob। আশা করি ভুলত্রুটিগুলো ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।

28 Usagi Drop

ক্যারেক্টার রিভিউ: গারা [আনিমে – নারুতো] — Goutam Debnath Sagar

Gaara-gaara-of-suna-27045252-1024-768

নামঃ গারা, গারা অফ দা সেন্ড, গারা অফ দা ডেজার্ট।
এনিমেঃ নারুতো

সে এখন বালুর দেশের প্রধানমন্ত্রী (বা ঐ রকমের কিছু :v)। জাপানের ভাষায় কাজেকাগে। তার গাঁয়ের সবাই এখন তার প্রতি নির্ভরশীল, তাকে ভালোবাসে। বারে বারে এখন বলছি কেন? কারন তার অতীত খুব একটা সুখকর ছিল না। চলুন তার জন্ম থেকেই শুরু করি।
তথাকথিত সকল গ্রামের মধ্যে শক্তির সুষম বন্টনের শিকার হয়ে তাকে ‘শুকাকু’ এর জিঞ্ছুরিকি হতে হয়। এটি সম্পন্ন করতে গিয়ে তার মায়ের করুন মৃত্যু হয় আর সে তার ‘গারা'(শাব্দিক অর্থ হচ্ছে ‘ a self loving carnage’ মানে যে অসুর শুধু নিজেকে ভালবাসে) নামটি পায়। সবার ঘৃণার জন্যই হোক বা নিজের নামের সার্থক করার জন্যই হোক গারা দিনে দিনে এক অসুরে পরিণত হয়, সে খুনের মধ্যেই তার জীবনের অর্থ খুঁজে পায়।
এখন কথা হচ্ছে নারুতোও তো একজন জিঞ্ছুরিকি, গারা কেন নারুতোর মতো হল না? কারণ নারুতো পেয়েছিল একজন ইরুকা সেন্সেই, একজন কাকাশি সেন্সেই। অপর দিকে গারার একমাত্র আপনজন ছিল ইউশিমুরা (তার মামা) যে নাকি মারা যাওয়ার সময় গারার জীবনকে আরো অন্ধকারের দিকে ঠেলে দেয়। যাইহোক পৃথিবীর সকলকে খুন করার আগেই নারুতোর সাথে চুনিন এক্সামের সময় গারা ‘ভালবাসা’, ‘ব্যাথা’, আবেগ ইত্যাদি বুঝতে সক্ষম হয় এবং দেশ ও দশের কল্যানে নিজেকে বিলিয়ে দেওয়া শুরু করে।
কেন ভালবাসবেনঃ (সম্পুর্ণ নিজস্ব মতামত)
সমস্ত নারুতো সিরিজে গারাকেই একমাত্র ভয় জাগানিয়া (fearfull) ভিলেন লেগেছে।
তার সেইয়ু (সাব ডাব দুইটারই) অসম্ভব সুন্দর কাজ করেছেন।
ওর মত খুব সহজে খুন করার প্রতিভা নারুতোতে খুব কম দেখা গেছে।
তার ট্রেজেডিক জীবন তাকে ভালোলাগার অন্যতম কারন।
সর্বোপরি তার calm nature এনিমে জগতে তাকে অন্যতম উচ্চতায় নিয়ে গেছে।

শেষ করতে চাই এইটা বলে, কিশিমত সেন্সেই at least ওরে কোন মাইয়ার সাথে জুইড়া দিতে পারতো। গারার সমস্ত জীবন গেল অন্যের জন্য কাজ করতে করতে। T-T

4381168-4379879-gaara-wallpaper-1024