রিভিউ কন্টেস্ট এন্ট্রি [২০১৫] #৫: BACCANO! — Rafiul Alam

BACCANO! রিভিউ:

“I don’t understand any of it,but it’s absolutely incredible!”

-Miria Harvent

এই রকম সাধারণ একটা কোট দিয়ে শুরু করলাম কেন?ওয়েল….প্রথম দুইটা এপিসোড দেখার পর এই ছিল আমার অনুভূতি।নন লিনিয়ার ন্যারাটিভে স্টোরি সবসময়ই বুঝতে খুব কষ্টসাধ্য কিন্তু উপভোগ্য হয়।আনিমে জগতে এমন বর্ণনাশৈলীর সবচে দর্শকপ্রিয় শো হল বাকানো।বিখ্যাত হলিউড মুভি পাল্প ফিকশন যদি আপনার ভাল লেগে থাকে,তাহলে এই আনিমে আপনার ভাল লাগবেই।মাফিয়া বিষয়ক অন্যতম আনিমে,আনিপ্লেক্স স্টুডিও প্রযোজিত,তাকাহিরো ওমরির পরিচালনায় ২০০৭ সালে প্রচার করা হয় ১৩ এপিসোডের এই সিরিজটি।পরের বছর রিলিজ হয় ৩ এপিসোডের বাকানো স্পেশাল।ও হ্যা…আনিমেটার ডাবড ভার্শন দেখার জন্য অনুরোধ করব।

Synopsis:আগে কিছু বিষয় বলে নেই….১ম এপিসোডে কিছু বিচ্ছিন্ন সময়কালের ঘটনা দেখাবে,ফলে কি ঘটবে,তা আপনি জানেন।কিন্তু কিভাবে ঘটবে,সেটা জানতে আপনাকে শেষ এপিসোড পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।এইরকম প্রথম কয়েকটি এপিসোডে আপনি কয়েকটি ভিন্ন স্থান এবং সময়ের  ঘটনা দেখতে পারবেন।পরবর্তী এপিসোডগুলোতে নিজেই ডট মিলাতে পারবেন,বুঝতে পারবেন যে চরিত্রগুলো একে অপরের সাথে কোন না কোনভাবে সংযুক্ত।এবং সব মিলিয়ে মুলত একটি ঘটনাই বিভিন্ন চরিত্রের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে দেখানো হচ্ছে।তো যাই হোক,একেবারে শুরুতে ক্যারল নামের এক ছোট্ট মেয়েকে কিছু বই ঘাঁটতে দেখা যায়।এরপর স্ক্রিনে আগমন ঘটে এক রাশভারী বয়স্ক লোকের।বুঝা যায় যে ক্যারল তার অ্যাসিস্ট্যান্ট,এবং তিনি কোন পত্রিকার বড় কর্তা।গল্পের ন্যারাটর তিনিই।ঘটনা হল ১৯৩১ সালের,ডালাস জেনোয়ার্ডের খোঁজে মাফিয়া বাহিনী ও তার বোন ইভ জেনোয়ার্ড। এদিকে লাইব্রেরীতে লাক গ্যান্ডর ও ফিরোর উপর বন্দুকের হামলা চালানো হয়।কিন্তু বুলেট তাদের শরীরের কোন ক্ষতি করতে পারে না।অন্যদিকে আন্তঃপ্রদেশ ট্রেন দ্যা ফ্লায়িং পুসিফুট শিকাগো হতে নিউইয়র্কের দিকে যাত্রা শুরু করে,সেই ট্রেনের যাত্রী হিসেবে আসার কথা আইজ্যাক ও মিরিয়ার।কিন্তু ট্রেনের কিছু যাত্রীর একেক রকমের উদ্দেশ্য,সবই পুরো ট্রেনের বাকি যাত্রীদের ঘিরে।এখন তারা কেউই অন্যদের উদ্দেশ্য জানে না।ফলাফল,সব মিলিয়ে এক ভয়ানক রক্তাক্ত পরিস্থিতি।রেল ট্র্যাকের পাশে এক হাত ছেড়া অবস্থায় পাওয়া যায় ল্যাড রুশোকে।কিভাবে তার এ অবস্থা হল?এই রকম অনেকগুলি ঝামেলাপূর্ণ ঘটনা নিয়ে আনিমেটির গল্প।এক্ষেত্রে আনিমেটির নাম স্বার্থক।ইতালিয়ান ভাষায় BACCANO শব্দের অর্থ হল ছোট খাট ঝামেলা।

Characters Setup:অনেকগুলো চরিত্র।অটিস্টিক  চরিত্রেরও অভাব নেই।এবং মজার ব্যাপার হল এতে কোন নায়ক বা ভিলেন নেই।প্রত্যেকটি চরিত্রের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে গল্পটি দেখানো হয়েছে।চরিত্রগুলোর মাঝে রয়েছে আইজ্যাক ও মিরিয়া,আনিমে জগতের অন্যতম ফানি কাপল।যারা কিনা মাফিয়ার কাছ থেকে অনায়াসে টাকা ছিনতাই করতে পারে,যাদের নামে পুলিশের ওয়ারেন্ট।কিন্তু তাদের সরল সহজ মন মানসিকতা মুগ্ধ করবে।ফিরো প্রোচাইনেযো,সুদর্শন,দয়ালু এই ১৮ বছর বয়সীকে ক্যারল বলেছে,”He is kind of main character-ish”.ফিরোর মেন্টর,মাইযা আভারো।চশমা পড়া এই লোক দেখতে সাধারণ হলেও আসলে তা নয়।গ্যান্ডর ফ্যামিলির হেড লাক গ্যান্ডর।জেনোয়ার্ড পরিবারের দুই ভাই বোন ডালাস ও ইভ।ডালাস হল ঝামেলা পাকানো বখে যাওয়া ছেলে।অদ্ভুত ক্ষমতার অধিকারী সিযলার্ড কোয়াটস,এবং তার সহকারী এনিস।হিংস্র,সাইকো খুনি ল্যাড রুশো,ও তার প্রেমিকা লুয়া ক্লেইন।অপার্থিব আক্রোব্যাটিক ক্ষমতাসম্পন্ন আরেক হিংস্র,বিকারগ্রস্ত লোক ক্লেয়ার ভিনো স্ট্যানফিল্ড।কথা বলতে অক্ষম এক মেয়ে চানে ল্যাফোর্ড,যার অতীত মোটেই সাধারণ নয়।ছোটবেলার দুই বন্ধু,মুখে তরোয়ালের ট্যাটু করা জ্যাকুযি স্পলট ও এক চোখ হারানো নিস হলিস্টোন।ছোট ছেলের মত দেখতে হলেও আসলে ছোট নয়,চ্যাযলো মেয়ার,তারও অতীত ঘটনা রয়েছে।আরও অনেক চরিত্র রয়েছে,আনিমে অ্যাডাপশনে কয়েকজনকে বাদ দেয়া হয়েছে।এতগুলো চরিত্রের কাহিনী যখন দেখতে থাকবেন,কনফিউজড হলেও প্রতি এপিসোডে নতুন কিছু বুঝতে পারবেন।

Theme setup,music and animation:১৯৩০ দশকের আমেরিকা,আনিমের প্রেক্ষাপট হিসেবে একেবারেই বিরল।যার কারণেই এই আমার কাছে এই আনিমের এত কদর।সেই সময়কার মাফিয়া বিজনেস,এক পরিবারের সাথে আরেক পরিবারের দ্বন্দ,বিশাল অঙ্কের ডলারের বাউন্টি এবং স্বার্থ হাসিলের জন্য কূটচাল খুবই উপভোগ্য ভাবে তুলে ধরা হয়েছে।এছাড়াও ওই সময়ের ক্ষমতা ও আতঙ্ক তৈরির যন্ত্র, টমিগানের ব্যবহার,নতুন আবিষ্কৃত v16 ইঞ্জিনের গাড়ী,জ্যাজ মিউজিক,শিল্পায়নের প্রভাব এবং মিলিনিয়ার হওয়ার স্বপ্ন,সব দিক থেকেই ৩০ দশকের আমেরিকান জীবনযাত্রার হুবহু প্রতিফলন তুলে ধরতে অসাধারণভাবে সক্ষম হয়েছে আনিমেটি ডিরেক্টর ওমরি তাকাহিরোর নেতৃত্বে।এবার আসি মিউজিকে,জ্যাজ মিউজিকের ব্যাবহার আর কোন আনিমেতে এত সুন্দর লাগেনি।একেবারে মানানসই ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক।ওপেনিংটা আমার শোনা সবচে প্রিয় ওপেনিং গুলোর মাঝে একটা।এন্ডিংটাও বেশ ভালো ছিল।আর্টওয়ার্ক আর আনিমেশন হল আ্যনিপ্লেক্স আ্যট ইটস বেস্ট।চরিত্রগুলো খুবই সুন্দর লেগেছে এই আর্টওয়ার্কে।এবং তাদের জীবন্ত এক্সপ্রেশনগুলো।

পরিশেষে বলতে চাই,আমি কোন আনিমে দেখার সময় তার ডেপথ কিরকম সেই ব্যাপারটা সবার আগে বিবেচনা করি।তো সেইদিক বিচারে এই আনিমে আমাকে এমনভাবে সন্তুষ্ট করেছে যে আমার দেখা টপ ১০ টি আনিমের মধ্যে থাকবে।তাই যারা এখনও দেখেননি,তারা চটজলদি দেখে ফেলুন!

Overall Rating:

Mal Rating: 8.6
My Rating: 9.5

5 Baccano

Comments

comments