A Letter to Momo (Momo e no Tegami) [মুভি রিভিউ] — Torsha Fariha

A Letter to Momo

আর দশটা স্লাইস অফ লাইফ জানরার মতই শুরু হয় মুভিটা। প্রথম দৃশ্যে একটা ছোট্ট মেয়েকে দেখা যায় শীপের ডেকে দাঁড়িয়ে থাকতে। হাতে একটা সাদা কাগজ যেখানে শুধু লেখা “Dear Momo,” বুঝা যায় কারো শুরু করা চিঠি এটা। কিন্তু আর কিছুই লেখা নেই।
মোমো’র পাশে তার মা যখন এসে দাঁড়িয়ে দূরে তাদের গন্তব্য- ছোট্ট একটা দ্বীপ যখন দেখতে থাকে তখন থেকেই মোটামুটি একটা ক্লিশে স্লাইস অফ লাইফের শুরু আন্দাজ করা যায়।

কাহিনী খুব সংক্ষেপে বললে যেটা দাঁড়াবে সেটা হল অনেক দিন বাদে মোমো আর তার মা শহর থেকে ফিরছে মফস্বলে। বাবা ক’ দিন হল মারা গেছেন দুর্ঘটনায়। মা ভুগছেন অ্যাজমাতে। সবকিছু বেচাবিক্রি করে তারা তাই চলে এসেছে এখানে।

শহরের মেয়ে মোমো। জন্ম থেকে শুরু করে বড় হয়েছে সে সেখানে। তাই কৈশোর ছুঁইছুঁই বয়সটাতে সে কিছুটা গাল ফুলাতেই পারে এই হুট করে জায়গা পরিবর্তনে। এইজন্য শুরু থেকেই বেশ ঠান্ডা- চুপচাপ দেখা যায় মেয়েটাকে। জাহাজে যখন দাঁড়িয়ে ছিল তারা তখন হয়তো টুপ্টাপ বৃষ্টি পড়ছিল খানিকটা। আস্ত একটা পানির ফোঁটা যখন মাথায় পড়লো মেয়েটার সে চমকে তাকালো আকাশের দিকে।
কই বৃষ্টির নাম গন্ধ তো নেই!

পানির কণাগুলো এত সুন্দর করে প্রথমে দেখায় তাতে প্রাসঙ্গিকভাবেই মাকোতো শিনকাই এর কথা মনে পড়ে যায়। ভাবি, তার মুভিগুলার মত সুন্দর অ্যানিমেশন কি দেখতে পাচ্ছি তাহলে?

নাহ! আসলে সেরকম না মোটেও। তিনটা পানির ফোঁটা যখন ওদের পিছন পিছন টূকটুক করে বাড়ি পর্যন্ত হেঁটে আসে তখনই বুঝি সুপারন্যাচারাল কিছু ব্যাপারস্যাপার আছে মুভিটাতে!

এভাবেই শুরু Letter to momo এর। গল্প এগুলে দেখতে পাব বাসায় অদ্ভুতুড়ে কাণ্ডগুলো কেন হচ্ছে, মোমো’র বাবা কিভাবে মারা গেছেন, কেন মোমোর তার বাবাকে বলা শেষ কথা ছিল “I hate you, dad! You don’t have to come anymore”, কিংবা মোমো’র মা কি নতুন করে জীবন শুরু করতে চাচ্ছে কিনা… ইত্যাদি ইত্যাদি।

হাতে সময় থাকলে দেখে ফেলা যায় এমন একটা মুভি এটা। মোটে ২ ঘন্টার মত। শুরুটা একটু ধীর এগুলেও, একসময় কিন্তু ভালো দৌড়োতে থাকে কাহিনী। বিরক্ত লাগবে না একটুও! যেমনটা ভেবে বসা হয় মুভিটা দেখতে, শেষ করে উঠার সময় ভিন্ন থাকে অনুভূতিটা। অ্যাডভেঞ্চার, স্লাইস অফ লাইফ, কমেডি, সুপারন্যাচারালের বেশ ভালো একটা কম্বিনেশন।

বলছি না এটা বেশ আলাদা ধরনের কোন মুভি। বরং এটা আর দশটা প্রথম সারির স্লাইস অফ লাইফের সমান মজার। খুব বেশি জীবনবোধের কিছু নেই, দর্শক নিজের জীবনের সাথে মেলাবে এমন কিছু নেই। এই মুভিটা দেখা অনেকটা জানালা দিয়ে আরেকজনের জীবন দেখার মত।

Hope you guys will like it 

IMDB rating: 7.3
My Rating: 8

Comments

comments