And Yet The Town Moves/Circles [সাজেশন] — Prottoy Rahman

and yet the town moves circles

১৬৩৩। গালিলেও গালিলেইকে সদ্য বাধ্য করা হয়েছে তার অলক্ষুণে বাণী অস্বীকার করতে: পৃথিবী নাকি সূর্যকে কেন্দ্র করে ঘোরে। তা সে জীবন বাঁচাতে নাহয় করল। কিন্তু পরে আসমানের দিকে অতঃপর জমিনের দিকে তাকিয়ে সে ঠিকই চিন্তামগ্ন স্বরে বলল “Eppur si muove”, ইংরেজিতে যা দাঁড়ায় “And yet it moves”। যেন সেই সুশীল সমাজকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে জানায় ‘তোমরা যা খুশি বিশ্বাস করো, সত্যের এতে কিছু যায় আসে না’। তা এসব অনেক আগের কথা, তখন আমার দাদার দাদা, বা তার দাদারও জন্ম হয় নি। প্রত্যক্ষ না করায় এর শুদ্ধতা যাচাই করাও আমার সাধ্যের বাইরে।

সাল এবার ২০১০। এনিমে মিডিয়ামটা কৈশরের গন্ডি পেরিয়েছে অনেক আগেই। পরিপক্কভাবে ভিত গেঁথে কয়েক দশক থেকেই অনেক শিল্পকর্ম উপহার দিয়ে এসেছে যা বিশ্বসেরা গল্পগুলোকেও টেক্কা দিতে পারে। এমন সময় আবির্ভাব ঘটে ২০০৫ সাল থেকে চলে আসা এক মাঙ্গার অ্যাডাপটেশন, স্টুডিও হলো Bakemonogatari-এর টানে সদ্য উঠে আসা শ্যাফ্ট। নতুন এই এনিমের নামটি ছিল ‘সোরেদেমো মাচি ওয়া মাওয়াত্তেইরু’, যার ইংরেজি করলে দাঁড়ায় And Yet The Town Moves/Circles. কিন্তু এ যুগে তো কোনো ধর্মালয় এসে কোনো কিছুতে বাঁধা দিচ্ছিলো না। তবে কার উদ্দেশ্যে এই নগর ঘুরানো নামটি এল?

এনিমটির মূল চরিত্র কাজের জন্য গর্ধভ, অকাজের জন্য চতুর; এর কমেডি slapstick ধাঁচের, কৌতুকগুলো ক্লিশে, ঘটনাচক্র কোনো এক দুনিয়ার নিয়ম মানে না, একেক অংশ একেক রকমের গল্প ধারণ করে, আর সাথে আছে উদ্ভট সব ক্যামেরা দৃষ্টিকোণ। সূক্ষ্মদর্শীতার দৃষ্টিতে এসব ধর্মকে একটু নিচু চোখেই দেখা হয়, প্রস্তুতিতে অলসতার চিহ্ন হিসেবে দেখা হয়। সাধারণত তা-ই বাস্তব। কিন্তু তা যে যেকোনো কাজের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য তা অনেকেই উপলব্ধি করতে পারে না। সঠিকভাবে ও অনুরাগের সাথে বাস্তবায়ন করলে যেকোনো কিছুই শিল্পের পর্যায়ে অধিষ্ঠিত হতে পারে। এই নতুন এনিমটি সেটিই প্রমাণ করে অসাধারণ নৈপুণ্যের সাথে। প্রকৃতপক্ষে এটি কাঁচকলা দেখায় convention জিনিসটাকেই। এর সকল দিক যে শুধু চমৎকার কারুকর্মের নিদর্শন তাই না, সকলের সমষ্টিতে এর সৌন্দর্যের বহুগুণ বৃদ্ধিও লক্ষ্য করার মতো।

অবশ্য সে যুগের এনিমে দর্শক না হওয়ায় ও এর লেখক ও অন্যান্য প্রস্তুতকারকদের না চেনায় এর নামের উদ্দেশ্য সম্পর্কে করা সকল উক্তিই আমার ব্যক্তিগতভাবে ধরে নেওয়া। যাই হোক, প্রচলিত ধারা ভঙ্গ করে ধারণা পাল্টানো এনিমের অভাব এসময় ছিলো না। বরং গত শতকেই বেশ কিছু ব্যাপক রকমের ভিন্ন ধাঁচের এনিমে পুরো ইন্ডাস্ট্রি কাঁপিয়েছে। কিন্তু সোরেমাচির মতো খাঁটি সোনা বেশ কমই পরখ করেছি গত ৬-৭ বছরের অভিজ্ঞতায়। তবুও ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে এটি খুব একটা দৃষ্টি আকর্ষণ করে নি। যদি আপনার সর্ব প্রকার কমেডি ও প্যারোডি একটি মোহনীয় ন্যারেটিভের ভেতর মজাদার ও প্রাণবন্ত চরিত্রের মধ্য দিয়ে অসম্ভব নৈপুণ্যের সাথে উপস্থাপনের প্রতি কৌতুহল থাকে… you know it.

চটপট দেখা শুরু করুন, শেষ না হওয়া পর্যন্ত থামতে পারবেন না। যদিও মাঙ্গা পুরো এডাপ্ট করে নি, থামার জন্য বেশ ভালো জায়গাই বেছে নিয়েছে। মাত্র ১২ পর্বের, তাই বেশি সময় লাগবে না।

Comments

comments