অনন্য মাঙ্গা আসর – ৫ (Boku no Hero Academia)

BnHA
কিং কিং সিটি,চীন
জন্ম হল এক শিশুর,যার সমগ্র শরীর থেকে বিচ্ছুরিত হতে লাগল আলো। এ কেমন নবজাতক?
স্বাভাবিক – অস্বাভাবিক নিতান্তই আপেক্ষিক। যে বৈশিষ্ট্য অধিকাংশের মাঝে খুঁজে পাওয়া যায় তাকেই স্বাভাবিক বলা হয়ে থাকে। এ মানুষের এক হাস্যকর যুক্তি। ঠিক এ উপায়েই তারা অসম্ভব-সম্ভব, ট্রাজিক-লিনিয়ার এর মধ্যে পার্থক্য করে থাকে।
ধীরে ধীরে সমগ্র পৃথিবীতে অস্বাভাবিক শিশুর জন্ম হয়ে উঠল সাধারণ ব্যাপার।আর এভাবেই আজকের পৃথিবী এমন অবস্থায় উপনিত হল যে —
৮০% মানুষের মাঝেই জন্মগতভাবে দেখা যায় সুপারপাওয়ার যা ৩-৪ বছর বয়সের দিকে প্রকাশ পায়।যা “Quirk” নামে পরিচিতি লাভ করে।
কিন্ত বাকি ২০% ……
তাদের গল্পটা কেমন…
সুপারন্যাচারাল এবিলিটি সূত্রপাত এর সুযোগে অপরাধ ও ক্রাইম ইফেক্ট তার ডালাপালা ছড়াতে আরম্ভ করলে জন্ম হয় হিরো কর্পোরেশন এর।হিরোদের জন্য স্কুল,ভার্সিটি থেকে শুরু করে প্রতিরক্ষা সেক্টরে সংগঠিত ব্যবস্থা গড়ে ওঠে………
আর এই পৃথিবীতে সবার কাছে “Symbol of Jsutice” হয়ে ওঠে হিরোদের টপেস্ট র‍্যাংকে থাকা “ALL MIGHT” ………
এরকমই এক পৃথিবী যেখানে কোয়ার্ক ছাড়া জীবন অচলপ্রায়,সেখানে ইজুকু মিদোরিয়া জন্মেছে কোন কোয়ার্ক ছাড়া। এই রূড় সত্য জানতে পারে সে তিন বছর বয়সে……
ছোটবেলার বন্ধু,পরিবার সবার কাছে নিজেকে অসহায় মনে হয় ইজুকুর……
কিন্ত যে দুটো কথা পারত তাকে জীবনে ঘুরে দাঁড়াতে শেখাতে,সে দুটো শব্দ তাকে শোনালো তার পরিবার,বন্ধুদের কেউ না ……………
যে হিরো ইজুকুর ছোটবেলা থেকে আদর্শ,সমগ্র পৃথিবীর সিম্বল অফ জাস্টিস “ALL MIGHT” ই তাকে বিশ্বাস করতে শেখালো “You can become a Hero”
এরপর ইজুকুর প্রবেশ ঘটে তার স্বপ্নের হিরো একাডেমিক স্কুলে – “ Yuuei High” তে
আর এই স্কুলের পথ ধরে ইজুকুর হিরো হয়ে ওঠার গল্পই মাই হিরো আকাডেমিয়া……
বিখ্যাত গ্রাম সর্দার হওয়ার গল্পের ইতি টানার পর উইকলি শোউনেন জাম্পে প্রকাশিত হয় হোরিকোশি কৌহেই এর “Boku no Hero Academia” । মানুষজন ঠিক যেভাবে এইচিরো ওডার মুখে আকিরা সেন্সেই”এর প্রশংসা শুনে ওয়ান পিস কে ড্রাগন বলের সাথে তুলনা করতে শুরু করে ঠিক সেভাবেই হোরিকোশির মুখে মাশাসি’র প্রশংসা শুনে ও প্রথম কয়েক চাপ্টার পড়ে একে গ্রাম সর্দার ভেবে ভুল করে বসে হঠকারী ফ্যানসমাজ……
জনরা ট্যাগে শোউনেন বেশ বড়সড় করেই লেখা আছে ……
মাঙ্গার রিএকশন এর দিকে একটু দৃষ্টিপাত করা যাক—
প্রথম – (১০-১৪ চাপ্টার)
বাহ! দাত্তেবায়ো! তুমি গ্রামের সর্দার না,টপ হিরো হবে – তফাৎ টা কোথায়? । আরেকটা টিপিক্যাল ঝনঝনানি আসছে [দীর্ঘদিন ড্রপড]
(২০-৩০ চাপ্টার)
চুনিন এক্সাম!! হুবহু লুকানো পাতা নকল মারা হচ্ছে নাকি?
যাই হোক ফাঈটগুলো বেশ ইন্টেন্স!!
(৫০ চাপ্টারের পর)
………………
………………
………………
প্লাস আলট্রা!!!!
প্লাস আলট্রা!!!!
চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে
পড়ার মাঙ্গা এটি নয়………
গল্পের বাকে বাকে অত্যন্ত উত্তেজনাকর ইন্টেন্স মুহূর্ত চলে আসছে……
(৭৮-৮০ চাপ্টারের দিকে)
আবার গ্রাম সর্দারের মত সাসকে ভাইকে গায়েব করে দিবা নাকি?
(৮৫-চলমান)
সেপুক্কু করা ছাড়া উপায় নেই(সন্দেহ করার অপরাধে) ,এক নিমেষে সব সন্দেহ দূর ……
খুঁজে পাওয়া গেল আরেকটি মাস্টারপিস মাঙ্গা…………
এই ছিল মাঙ্গাটা পড়ার সময়ে আমার রিএকশন,যখনই মনে হয়েছে গল্পটা সেই পুরোনো শিবের গীতের দিকে মোড় নিচ্ছে তখনই মাঙ্গাকা এমন প্লট টুইস্টের অবতারণা করেছেন যাতে পরবর্তী চাপ্টারের জন্য আগ্রহ জন্মানোটা স্বাভাবিক।
৮৯ চাপ্টার পর্যন্ত বের হওয়া মাংগাটি এখনো অনগোয়িং………
এপ্রিল ৩ থেকে শুরু হওয়া ১৩ এপিসোডের এনিমেটি মূল গল্পের PROLOGUE ও না, INTRODUCTION মাত্র……
সময় বের করে কষ্ট করে ৪০/৪৫ চাপ্টার পর্যন্ত যেতে পারলে বাকিটা আর কাউকে বলতে হবে না………
একশন সিকুয়েন্স গুলোর মাঝে অন্যরকম একটা ফ্লেভার পাওয়া যাবে।প্রতিটা ব্যাটল ই স্ট্রাটেজিভিত্তিক।বেশ ভালো কিছু সায়েন্টিফিক রেফারেন্স ও এসেছে কিছু কোয়ার্ক এর ক্ষেত্রে……
অনেকেরই ছিঁচকাঁদুনে মিদোরিয়াকে নিয়ে অনেক সমস্যা —
প্রথম প্রথম তাকে গ্রাম সর্দারের চেয়েও বেশি বিরক্তিকর লাগে,কিন্ত মিদোরিয়া চরিত্রের বেশ ভালো কিছু দিক আছে।প্রথমত,তার মাঝে বিখ্যাত হওয়ার আকাঙ্ক্ষা নেই।দ্বিতীয়ত,সে উপস্থিত বুদ্ধি খাটাতে সক্ষম।
সবচেয়ে ভালো দিকটি হল,মিদোরিয়ার ক্ষমতা যে কত কম তা শুরু থেকেই অঙ্গুলিসংকেত করা হয়েছে।আকস্মিক পাওয়ার আপ দিয়ে ব্যাপারটাকে তেজপাতা করা হয়নি……
মাঙ্গার আর্ট যতই চাপ্টার এগিয়েছে,ততই ভালো হয়েছে।বিশেষ করে কমব্যাট এনভায়রনমেন্ট এর আর্টস্টাইল Nurarihyon no Mago র মত পরিষ্কার হয়েছে।তবে এখানে বিস্ফোরণ সহ অন্যান্য ম্যাটেরিয়ালস চলে এসেছে যার কারণে হোরিকোশি কৌহেই কে স্যালুট দিতেই হবে……
যারা Katekeyo Hitman Reborn এর ভক্ত,তারা ব্যাপারটি ভালো বুঝতে পারবেন। প্রথম প্রথম বেশ বোরিং লাগলেও পরবর্তীতে শোউনেন জনরার “হিডেন জেম” খুঁজে পেয়েছি – এমন অনুভব হলে অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না।
৮৯ চাপ্টার অবধি ব্যাক্তিগত রেটিং – ৯.০
বেশ ভালো কিছু চরিত্র এসেছে যা ভিন্নমাত্রা এনেছে স্টোরিলাইনে।তবে গল্পের মেইন ভিলেইন কে এটা নিয়ে বেশ ঘোলা রহস্য ছিল।কখনো শিগারাকি,কখনো স্টেইন …… কিন্ত আসল উত্তর …….. মাঙ্গা পড়লে এই শূন্যস্থান নিজেই পূরণ করা যাবে।
স্পেশাল নোট :
মাঙ্গাতে মাঝে মাঝে দেয়া U.A. File গুলো না পড়লে কোয়ার্ক গুলোর ফুল এবিলিটি সম্পর্কে ধারনা পাওয়া যাবে না।তাই ওগুলা স্কিপ করা উচিত হবে না ………

Comments

comments