Dallos [রিভিউ] — Towhid Chowdhury Faiaz

Dallos 1

এনিমে: Dallos
পর্ব সংখ্যা:

একবিংশ শতাব্দীর শেষে পৃথিবীর জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের বাইরে এতোই বৃদ্ধি পায় যে পৃথিবী মানুষদের বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়ে। এমনই সময় মানুষ বেঁচে থাকার জন্য চাঁদের খনিজ সম্পদকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করে। এভাবেই চাঁদে মানুষদের বসবাস শুরু হয় কিন্তু পুরনো প্রজন্মের যারা পৃথিবীকে বাঁচানোর জন্য চাঁদে এসেছে তাদের দৃষ্টি এবং নতুন প্রজন্মের যারা পৃথিবীকে কখনো না দেখা সত্তেও পৃথিবীর জন্য কাজ করতে বাধ্য হয়েছে তাদের দৃষ্টি কি কখনো এক হতে পারে? এটিই ড্যালাস গল্পের কাহিনীর মূল ভিত্তি।

ড্যালাস এনিমেটার নাম প্রথম আমি প্ল্যানেটস এবং রয়্যাল স্পেস ফোর্স এনিমের রেকোমেন্ডেশন ফরামে খুঁজে পাই। যেহেতু ওই দুটি এনিমে অনেক ভালো লাগে সেহেতু এই এনিমেটা দেখার জন্য অনেক আগ্রহ জন্মে। একটু ঘাঁটা-ঘাঁটি করার পর দেখি এই এনিমের পরিচালক গোস্ট ইন দ্যা শেল এর পরিচালক মামোরু অশী। এই কাজটা তার একদম প্রথম দিকের।

এই এনিমের সবচেয়ে শক্তিশালী জিনিসটি হলো এর কাহিনীর বিষয়বস্তু। চাঁদে মানুষের কলোনি হলে এক সময় ভবিষ্যৎ কীরকম হবে তার একটি বাস্তব প্রতিচ্ছবি এই এনিমেটা প্রকাশ করে। কাহিনীর মূল অংশটুকু ভালো হলেও চিত্রনাট্যের অনেকটুকু অংশই খুবই দুর্বল ছিলো। এর সবচেয়ে বড় কারণ হচ্ছে এনিমেটার দুর্বল চরিত্রায়ন। কোনো চরিত্রকেই এই এনিমেতে বিশেষ মনে হয় নি আর এনিমে শেষ হবার আগেই আপনি চরিত্রগুলোর নাম ভুলে যাবেন। পরিচালনার দিক দিয়েও এনিমটা অসম্ভব রকমের হতাশ করেছে আমাকে। এই এনিমেটার ৩ বছর পর মামোরু অশী অ্যাঞ্জেল’স এগ পরিচালনা করেন যা আমার মতে কেবল এনিমে নয় বরং সিনেমা পরিচালনার সেরা কাজগুলোর মধ্যে একটি। প্রতিটি মুহূর্ত এর চমৎকার দৃশ্য পরিচালনার জন্য স্মরণীয় কিন্তু ওই তুলনায় ড্যালাস একদম সাদা-মাটা। ড্যালাসের পরিচালনা এবং দৃশ্য পরিচালনা অনেক ভালো করা যেতো।

এনিমেটা যে খারাপ তা নয় কিন্তু এনিমেটার যেই কাহিনী এবং থিম-সেটিং ছিলো সেটা দিয়ে ২ ঘণ্টার একটি চমৎকার এনিমে ফিল্ম কিংবা ১২ পর্বের সিরিজ বানানো যেতো। হয়তবা অশীর প্রথম দিকের কাজ বলে এতো ভুল হয়েছে এনিমেটাতে। বর্তমান অশী যদি এখন এই এনিমেটা নিয়ে কাজ করে তাহলে আমি নিশ্চিত এটি কমপক্ষে ৮/১০ এর মতোই একটি সিরিজ হবে। কিন্তু দুঃখজনক ভাবে এই এনিমেটা ৫-৬/১০ এর মতো একটি সিরিজ।

Dallos 2

খুবই ভিন্ন এবং বাস্তব অনেকগুলো বিষয় এনিমেটা দেখিয়েছে এবং কাহিনীটাও বেশ ভালো যদিও এর দুর্বল চিত্রনাট্য এনিমেটার অনেক ক্ষতি করেছে। “দেখতেই হবে” এমন ধাঁচের কোনো এনিমে না কিন্তু আপনি যদি মামোরু অশীর ফ্যান হয়ে থাকেন তাহলে দেখতে পারেন।

Comments

comments