Kono Subarashii Sekai ni Shukufuku wo! [লাইট নোভেল রিভিউ] — তৌফিক সরকার

KonoSuba 2

Kono Subarashii Sekai ni Shukufuku wo! /Give Blessings to This Wonderful World!

জনরা- ফ্যান্টাসি, কমেডি, অ্যাডভেঞ্চার
মোট ভলিউম- ১৩

সাতৌ কাজুমা পারফেক্ট হিকিমোরি। হিকিমোরি হচ্ছে নিজের রুমে সারাদিন বসে কম্পিউটার গেম, অ্যানিমে ও সিনেমার মাঝে ডুবে থাকা। খুব কমই ঘর থেকে বের হয় হিকিমোরিরা। কিন্তু কাজুমা একদিন বাসা থেকে বের হলো, তবে এক ফেভারিট গেম কেনার জন্য। বিপত্তি বাধে সেখানেই, গেম কিনে ফিরে আসার সময় সে দেখে এক স্কুল পড়ুয়া মেয়ে রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছে, এক ট্রাকের ছায়া এগিয়ে আসছে মেয়েটার দিকে। মেয়েটাকে বাঁচাতে গিয়ে নিজে মারা যায়, আর আবিষ্কার করে অন্য এক জায়গায়। সেখানে এক সুন্দরী মেয়ে বসে ছিল তার অপেক্ষায়।

সুন্দরী মেয়েটি ছিল পানির দেবী আকুয়া। তার কাজ হলো জাপান থেকে মৃত লোকদের স্বর্গে নাইলে অন্য আরেক দুনিয়ায় পাঠানো। আর ভালো কথা, কাজুমা কিন্তু ট্রাকের চাপায় পড়ে মারা যায়নি। মারা গেছে ট্রাক্টরের কারণে। কিন্তু সেটাও ওকে চাপা দেয়নি, সময়মত থেমে যায়। কিন্তু ট্রাক্টরকে ট্রাক মনে করে সে হার্ট অ্যাটাক করে, আর মরার আগে নিজের প্যান্ট ভেজাতে ভুল করে না!

আকুয়া এটা নিয়ে হাসাহাসি করে, কাজুমা যায় রেগে। তাকে বলা হয় যে সে প্যারালাল এক ফ্যান্টাসি দুনিয়ায় যেতে পারবে যেখানে ডেমন কিং আছে, এবং তার চ্যালা-পুলা মানুষদের উপর বারবার আক্রমণ করছে। তাদের রক্ষা করতে হবে। ডেমন কিং-কে পরাজিত করার জন্য সে নিজের ইচ্ছেমত যেকোনো নিতে পারবে, সেটা অস্ত্র কিংবা অসীম ক্ষমতা, যেকোনো কিছু। কাজুমা এক পায়ে খাড়া। কিন্তু দেবী আকুয়ার তাচ্ছিল্য সে সহ্য করতে পারল না। তাই সে দেবীকে নিয়েই ফ্যান্টাসির মাটিতে নামল। আর দেবী আকুয়া তো বাকহারা।

KonoSuba 1

কাজুমা মনে করেছিল আকুয়া যেহেতু দেবী, সেই কাজুমার অর্ধেকের বেশি কাজ করে দিবে। কিন্তু বিধিবাম, দেবী কোনো কাজের না, অলস আর নারসিসিস্ট টাইপের। আর ফ্যান্টাসি দুনিয়ার হিরো হবার যোগ্যতা নেই কাজুমার। সবচেয়ে নিচু লেভেলের অ্যাডভেঞ্চারার হতে হলো তাকে। তার দলে যোগ দিল আরো দুটো মেয়ে, প্রতিভাবান জাদুকর মেগুমিন, যে কিনা বিস্ফোরণের জাদু ছাড়া আর কোনো জাদুতে আগ্রহী না। আর ডার্কনেস, হাজার ধাক্কা সহ্য করতে পারলেও শত্রুর গায়ে ফুলে টোকা মারতে পারে না, আর মেয়েটা প্রচুর পরিমানে masochist।

এই অদ্ভুত টিম নিয়ে কাজুমা কীভাবে ডেমন কিং ও তার চ্যালা-পুলাদের সামলাবে?

তবে আরেকটা কথা বলি, কাজুমা কিন্তু দুধে ধোঁয়া তুলসী পাতা না। শত্রুর সামনে দুই নাম্বারী, চালিয়াতি করতে তার মন বিন্দুমাত্র কাঁপে না। তাছাড়া সাথীদের ঢাল বানিয়ে নিজেকে রক্ষা করতেও দ্বিধা করে না, তবে বিপদে পড়লে তাদের আবার ঠিকই রক্ষা করে। সাথে সে প্রচুর পরিমাণে অলস আর পার্ভাট স্বভাবের।

আর ভাবেই এগিয়ে যায় তাদের অ্যাডভেঞ্চার। আর তাদের অ্যাডভেঞ্চারের মাধ্যমে এগিয়ে যায় কোনোসুবা সিরিজ।

এখন আপনি যদি ইংরেজী কোনো সিরিজ পড়তে চান, কিন্তু সেটা সহজ ভাষায়। আর হাসতে চান দম ফাটিয়ে। তাহলে আমি আপনাকে এটা রেকমেন্ড করব। এই সিরিজটা লেখাই হয়েছে আপনাকে হাসানোর জন্য। কখনো কাজুমার কীর্তিকালাপে, কখনো মেগুমিনের পাগলামি, কখনো আকুয়ার বোকামি, কখনো ডার্কনেসের নিজের চাহিদা(!) এর উপর সঁপে পড়তে দেখে আপনি নির্দ্বিধায় হাসবেন। পড়ে আরো কিছু মজার চরিত্র আসে, প্রাক্তন ডেমন কিং দলের সদস্য ও লিচ (আনডেড জাদুকর) উইজ যে কিনা এক ম্যাজিকশপ খুলেছে কিন্তু লসের মুখে আছে। আরেক ডেমন কিং দলে সদস্য ভানির, যার একমাত্র লক্ষ্য মানুষকে ধোঁকা দিয়ে মজা করা। মেগুমিনের সহজ সরল বান্ধবী (কাজুমার ভাষায় একমাত্র স্বাভাবিক মেয়ে) ইয়ুনইয়ুন। ডার্কনেসের বান্ধবী, ও বিখ্যাত চোর ক্রিস। সাথে আছে কাজুমার তলোয়ার চুনচুনমারু (নাম মেগুমিনের দেয়া), মেগুমিনের অদ্ভুত বিড়াল চমুস্কে, আর আকুয়ার তথাকথিত ড্রাগন কিন্তু অন্যের চোখে বাচ্চা মুরগী এম্পায়ার যেল (সে অনেক পড়ে আসে)।

এখন কেন এই নভেল সিরিজ পড়বেন? আগেই বলেছি দম ফাটিয়ে হাসার জন্য। বইয়ের প্রতিটি পরতে পরতে হাসির এলিমেন্ট ঢুকানো আছে যা আপনাকে হাসিয়ে ছাড়বে। আর প্রচুর সহজবোধ্য করে জাপানি থেকে ইংলিশে ট্রান্সলেট করা হয়েছে। ডেমন কিং দলের সাথে মারামারি করা সময় কাজুমা ও তার দলের পাগলামি পড়লে তো হাসাহাসি খাবেন। আর ওদের পাগলামির একটু বর্ণনা যদি দিই তাহলে গল্পের কিছুটা স্পয়লার হয়ে যাবে। তাই দিলাম না। এছাড়া এটার অ্যানিমে সিরিজও আছে। সেটাও কিন্তু কম হাসির না, ভয়েস আর্টিস্টরা খুব যত্নের সাথে চরিত্রগুলো ফুটিয়ে তুলেছেন। কিন্তু অ্যানিমে চারটা নভেল অ্যাডাপ্ট করেছে, সেখানে মোট নভেলের পরিমাণ ১৩টা, তাই আমি বলব প্রথম থেকেই পড়া শুরু করে দিন। মজা শতভাগ উসুল হবে।

KonoSuba 3

Comments

comments